ধুবিল কাটার মহল জমিদার বাড়ি

 লিখেছেনঃ
  ডিসে. 2, 2019
  977 Views
0 0

ভারত উপমহাদেশের বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে বিভিন্ন নিদর্শন যার মধ্যে অন্যতম  জমিদার বাড়ি। দেশভাগের পর ১৯৫০ সালে জমিদারি প্রথা বিলুপ্ত হওয়ার ফলে এদেশ ছেড়ে কলকাতায় চলে যান বেশিরভাগ জমিদার। রেখে যান তাদের ঐতিহ্যবাহী বাড়ি সহ বিভিন্ন জিনিসপত্র। বাংলাদেশের আঁনাচে-কানাচে ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে সেগুলো। মোগল আমল থেকে শুরু করে সুলতানী আমল ও ব্রিটিশ আমল পর্যন্ত এ জমিদার প্রথা চালু ছিল।

জমিদারি প্রথা বিলুপ্ত হলেও মুছে যায়নি তাদের ইতিহাস ঐতিহ্য,  কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে জমিদার বাড়ি গুলো। তেমনি একটি জমিদার বাড়ি ধুবিল কাটার মহল জমিদার বাড়ি। উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জ জেলার জমিদারি প্রথার সাক্ষী হয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে এই ধুবিল কাটার জমিদার বাড়ি। স্থানীয়দের কাছে বাড়িটি তালুকদার বাড়ি নামেও পরিচিত।

এ জমিদার বাড়িতে রয়েছে এমন কিছু স্থাপনা যা এখনও জমিদারী স্থাপত্যের সুনিপূণ কারুকার্যের প্রতীক হিসেবে দাঁড়িয়ে আছে। আনুমানিক ১৮৪০ সালে জমিদার মুন্সি আব্দুর রহমান তালুকদারের আমলে  বাড়িটি নির্মাণ করা হয়েছিল। একসময় মহাসমারোহে এ জমিদার বাড়িটি পরিচালিত হতো। হাতিশালে হাতি আর ঘোড়াশালে থাকত ঘোড়া। এখানে নানা কারুকাজ খচিত কয়েকটি ভবন আছে। ভবনের দোতলায় কয়েকটি ঘরে রয়েছে সেসময় কাঠের  সব আসবাবপত্র।

অবস্থান

এটি বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগের সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার ধুবিল ইউনিয়নে অবস্থিত।

[ সিরাজগঞ্জ সদর থেকে রায়গঞ্জ উপজেলা ২৩ কিলোমিটার। বাস বা সিএনজি যোগে উপজেলা-সদর বাস স্ট্যান্ড নেমে সেখান থেকে সিএনজি বা অটোতে ধুবিল ইউনিয়নের ধুবিল কাটার মহল জমিদার বাড়ি যেতে পারেন।

সিরাজগঞ্জ থেকে রায়গঞ্জ উপজেলা ৪০-৪৫ মিনিট সময় লাগে আর ভাড়া পড়বে ৪০ টাকার মতো। রায়গঞ্জ উপজেলা সদর থেকে ধুবিল কাটা জমিদার বাড়ি ৫০ মিনিটের মত সময় লাগে আর ভাড়া পড়বে ৪০ টাকা]

কিভাবে যাবেন

রাজধানী ঢাকার কল্যাণপুর ও গাবতলী বাস টার্মিনাল হতে অথবা মহাখালী বাস টার্মিনাল হতে ঢাকা হতে বগুড়া গামী অথবা ঢাকা-রাজশাহী গামী যেকোনো বাসে চোড়ে ভ্রমণ করতে পারবেন। এছাড়া ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ শহরে বেশ কয়েকটি বাস যোগে যেতে পারেন ।

বাস

ঢাকা লাইন পরিবহন (টেকনিক্যাল কাউন্টার মোবাইল-01879116916, সিরাজগঞ্জ মোবাইল-01879116912)
অভি ক্লাসিক  (টেকনিক্যাল মোবাইল-01715155939, সিরাজগঞ্জ মোবাইল-01715114180)
নন এসি ভাড়া ২৫০ টাকা
এছাড়া হানিফ, ন্যাশনাল,শ্যামলী, দেশ ট্রাভেলস  যোগে সিরাজগঞ্জ  যেতে পারেন।

ট্রেন

ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী বেশ কয়েকটি ট্রেন সিরাজগঞ্জ মনসুর আলী স্টেশন থামে সেখানে নেমে ১০ টাকা ভাড়া দিয়ে সিরাজগন্জ যেতে পারেন। ঢাকা কমলাপুর ও এয়ারপোর্ট স্টেশন থেকে পুরো দিনই সিরাজগঞ্জের ট্রেন পাওয়া যায়।

কোথায় থাকবেন

সিরাজগঞ্জ শহরে থাকার মতো বিভিন্ন মানের হোটেল রয়েছে।
হোটেল আরমানি, মুজিব সড়ক, মোবাইল-01711340519
হোটেল অনিক ,মুজিব সড়ক, মোবাইল-01712062061
হোটেল আল হামরা, স্বাধীনতা স্কয়ার, মোবাইল-01745629264
হোটেল উত্তর ভিলা, সিরাজগঞ্জ রোড চৌরাস্তা,মোবাইল-01712623180

[ রায়গঞ্জ উপজেলা সদর থাকতে চাইলে ডাকবাংলো থাকতে পারে সেজন্য আগে থেকে অনুমতি নিয়ে রাখতে হবে]

[ হোটেল গুলোর ভাড়া তিনশ থেকে তিন হাজার টাকার মধ্যে পড়বে]

Article Categories:
রাজশাহী
banner

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।