আছরাঙ্গা দিঘী

 লিখেছেনঃ
  নভে. 26, 2019
  820 Views
0 0

জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার ঐতিহাসিক নিদর্শন আছরাঙ্গা দিঘী। এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য মুগ্ধ করে এখানে আসা ভ্রমণপিপাসু মানুষদের। দীঘিটির সঠিক কোন ইতিহাস লিপিবদ্ধ না থাকলেও জানা যায় তৎকালীন রাজশাহী জেলার তাহিরপুর আদি রাজবংশের পূর্বপুরুষ ভট্ট নারায়নের তেরো বংশধর নবম শতকে এই দীঘিটি খনন করেন।

জনশ্রুতি আছে যে আদিকালে অগ্রহায়ণ মাসে আমন ধানের ক্ষেত থেকে লাল রং ধারণ করতো বলেই এই এলাকার নাম ক্ষেতলাল হয়েছে। দীঘিটির চারপাশে চারটি বাধায় করা ঘাট আছে শীতকালে বিভিন্ন প্রকার অতিথি পাখির আগমনে দীঘিটি হয়ে ওঠে কলকাকলিতে ভরপুর।  দীঘিটির আয়তন প্রায় ২৬ একর। সনাতন ধর্ম সহ অন্যান্য ধর্মের অনুসারীদের তীর্থস্থান হিসেবে খ্যাতি লাভ করে। দীঘিটি কে কেন্দ্র করে মাজার মন্দিরসহ সনাতন ধর্মীয় প্রতীক হয়ে ওঠে।

কথিত আছে এ দীঘির জল কাকচক্ষু জলের মতো স্বচ্ছ সুমিষ্ট ও ঔষধি হিসেবে ব্যবহৃত হতো। ১০৭০ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ১০০০ ফুট প্রস্থ বিশিষ্ট দীঘি। ১৯৯২ সালে তৎকালীন সরকার দিঘির সংস্কার ও পুকুর খনন কাজ করেন খননকালে ১২টি মূল্যবান মূর্তি পাওয়া যায় যা বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জাদুঘরে সংরক্ষিত আছে। দিঘির চারপাশে প্রায় ৫০০০ ফলদ, বনজ ও ভেষজ সহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগানোর পর নান্দনিক সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

অবস্থান

এটি বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগের জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের রসুলপুর মৌজায় তুলসীগঙ্গা নদীর পাড়ে অবস্থিত।
কিভাবে যাবেন
বাস
ঢাকার কল্যাণপুর,গাবতলী, টেকনিক্যাল থেকে জয়পুরহাট যাওয়ার বাস পাবেন ।
হানিফ এন্টারপ্রাইজ কল্যাণপুর মোবাইল-01713049573
এস আর ট্রাভেলস প্রাইভেট লিমিটেড কল্যাণপুর মোবাইল-01711394801
ঢাকা থেকে জয়পুরহাট ননএসি বাস ভাড়া ৪৫০ টাকা।
ট্রেন
ঢাকা কমলাপুর থেকে জয়পুরহাট
নীলসাগর এক্সপ্রেস ছাঁড়ে 8:00 Am পৌঁছায়  02:48 pmবন্ধ সোমবারএকতা এক্সপ্রেস ছাঁড়ে 10:00 Am পৌঁছায় 5:00 pmদ্রুতযান এক্সপ্রেস ছাঁড়ে 8:00 Pm পৌঁছাই 02:34 Am
কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ছাঁড়ে  8:45 Pm পৌঁছায় 02:53 Am
বন্ধ বুধবারসকল ট্রেনের ভাড়া 410 টাকা
জয়পুরহাট থেকে ঢাকা কমলাপুর
নীলসাগর এক্সপ্রেস ছাঁড়ে 12:20 Am পৌঁছাই 07:10 Am
একতা এক্সপ্রেস 1:30 Am পৌঁছায় 8:10 Am
কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ছাঁড়ে 10:52 Am পৌঁছায় 5:25 pmদ্রুতযান এক্সপ্রেস ছাড়ে 11:34 pm পৌঁছায় 6:10 Am[ জয়পুরহাট বাস স্ট্যান্ড থেকে বাস বা সিএনজি যোগে ক্ষেতলাল উপজেলায় নেমে সেখান থেকে অটোভ্যান যোগে আপনারা আছরাঙ্গা দিঘী যেতে পারেন। জয়পুরহাট শহর থেকে ক্ষেতলাল উপজেলা ২৫-৩০ মিনিটের মত সময় লাগে আর ভাড়া পড়বে ২০-২৫ টাকার মতো]

কোথায় থাকবেন

জয়পুরহাট শহরে থাকার মতো বিভিন্ন মানের হোটেল রয়েছে।

হোটেল সাদ, ১ নং স্টেশন রোড জয়পুরহাট মোবাইল-01721904488

প্রমি হোটেল, সদর থানার পশ্চিম পাশে  মোবাইল01727-806667

হোটেল পৃথিবী ইন্টারন্যাশনাল, সদর রোড,জয়পুরহাট মোবাইল-01717866529

[ ক্ষেতলাল উপজেলা সদর থাকতে চাইলে ডাকবাংলোতে থাকতে পারেন সে জন্য আগে থেকে অনুমতি নিয়ে রাখতে হবে]
[ হোটেল গুলোর ভাড়া ৩০০-৩০০০ টাকার মধ্যে পড়বে]
Article Categories:
জয়পুরহাট
banner

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।