নলতা শরীফ

 লিখেছেনঃ
  ডিসে. 30, 2019
  1143 Views
2 0

বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষই ইসলাম ধর্মের অনুসারী। এই উপমহাদেশে ইসলাম প্রচারে এসেছেন  পীর ও ধর্মপ্রচারক, যাদের মধ্যে অন্যতম খান বাহাদুর আহসান উল্লাহর বংশধর। খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ সাতক্ষীরায় জন্মগ্রহণ করলেও তার পূর্বপুরুষ ইরান থেকে এসেছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পর তাঁকে স্মরণ করতেই এই নলতা শরীফ নির্মিত হয়। বিখ্যাত আহসানিয়া মিশনের প্রতিষ্ঠাতা  তিনি।

এ অঞ্চলে ধর্মপ্রচারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। তার প্রচেষ্টায় সাতক্ষীরায় গড়ে ওঠে নানা মসজিদ-মাদ্রাসা। জনকল্যাণমূলক কাজে তিনি নিয়োজিত থাকতেন সব সময়। তাঁর মৃত্যুর পর তাঁর নাম অনুসারে দেশের নানা প্রান্তে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। নালতা শরীফ তার মধ্যে অন্যতম। প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী এই নালতা শরীফ দেখতে আসেন। অনেকেই এখানে এসে ইচ্ছা প্রকাশ করে মানত করেন।

বছরের একটা নির্দিষ্ট সময় নালতা শরীফে ওরস মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ৮-১০ ফেব্রুয়ারি খান বাহাদুর আহসান উল্লাহর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই মাহফিল হয়। মাহফিলকে ঘিরে এ অঞ্চলে একটা উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়।  সে সময় মেলা বসে  এখানে, মেলায় দেশি-বিদেশি জিনিসের পসরা নিয়ে বসেন দোকানিরা।  এখানে একটি জাদুঘর আছে যা সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।  প্রায় ৫০ বিঘা জমির উপর এই  নলতা শরীফ অবস্থিত।

এই নালতা শরীফের মধ্যে অবস্থিত মাজার, মসজিদ, একটি লাইব্রেরী,স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও একটি পুকুর। মাজারকে ঘিরে  তৈরি করা হয়েছে একটি সুদৃশ্য ফুলের বাগান। প্রতি রমজান মাসে পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় এখানে। পাক রওজা শরীফে মোট ৯টি গম্বুজ আছে। সাদা রংয়ের গম্বুজগুলোর উপর সূর্যের আলো পড়লে বেশ উজ্জ্বল দেখায়। গম্বুজগুলোর বাইরে নানা শৈল্পিক কারুকাজ লক্ষ্য করা যায়।

নলতা শরীফের অবস্থান

এটি বাংলাদেশের সাতক্ষীরা জেলা শহর হতে ৪৮ কিলোমিটার দূরে কালীগঞ্জ উপজেলার নলতা বাসস্ট্যান্ডের অনতিদূরে এই মাজার শরীফ অবস্থিত।

কিভাবে যাবেন

বাস

ঢাকার কল্যাণপুর গাবতলী কমলাপুর টেকনিক্যাল থেকে সাতক্ষীরা যাওয়ার বাস পুরো দিনই পাওয়া যায়।

সোহাগ পরিবহন( কমলাপুর মোবাইল-01926696262, সাতক্ষীরা মোবাইল-01711420553)
কে লাইন পরিবহন( গাবতলী মোবাইল-01708434842, সাতক্ষীরা মোবাইল-01708434840, সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ উপজেলা মোবাইল-01708434848, শ্যামনগর-01708434869)

একে ট্রাভেলস( কল্যাণপুর মোবাইল-01709964208,সাতক্ষীরা মোবাইল-01709964192)

নন এসি ৫৫০ টাকা এসি ১২০০ টাকা ভাড়া।

অনলাইনে টিকিট বুকিং এর জন্য, সহজ-16374
বাস বিডি-16460

ট্রেন

ঢাকা থেকে সাতক্ষীরা সরাসরি কোন ট্রেন নেই তবে ঢাকা থেকে খুলনা জেলায় ট্রেনে যেয়ে সেখান থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে বাস বা সিএনজি যোগে সাতক্ষীরা জেলায় যেতে পারে।

ঢাকা কমলাপুর থেকে খুলনা

সুন্দরবন প্রভাতী ছাঁড়ে 6:20 Am পৌঁছায় 4:20 pm

বন্ধ বুধবার

চিত্রা ছাঁড়ে 07:00 Pm পৌঁছায় 05:10 Am

বন্ধ মঙ্গলবার

সকল ট্রেনের ভাড়া ৫২৫ টাকা

খুলনা থেকে ঢাকা কমলাপুর

চিত্রা ছাঁড়ে 08:40 Am পৌঁছায় 06:20 Pm

সুন্দরবন ছাঁড়ে  8:30 Pm পৌঁছায় 05:40 Am

সাতক্ষীরা জেলা থেকে কালীগঞ্জ উপজেলায় ৪০ কিলোমিটার পথ। বাস বা সিএনজি যোগে ৭০-৮০ মিনিটের মত সময় লাগে আর ভাড়া পড়বে ৫০-৬০ টাকার মতো। কালীগঞ্জ উপজেলা সদর হতে বাস বা ভ্যান গাড়ি অথবা অন্যান্য পরিবহন যোগে নলতা শরীফ যেতে পারেন।  কালীগঞ্জ উপজেলা থেকে নলতা শরীফ ৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

কোথায় থাকবেন

ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নলতা শরীফ দর্শনের সময় আপনি ইচ্ছা করলে একদিনেই পুরা ভ্রমণ শেষ করতে পারেন। ঔরসের সময় এখানে মাজার শরীফের পাশেই থাকার জন্য বেশ কিছু ভবন আছে। আপনি ইচ্ছা করলে সেগুলোতে থাকতে পারেন।

[কালীগঞ্জ উপজেলায় থাকার মত তেমন কোন হোটেল নাই তবে এখানে সরকারি রেস্ট হাউস ও উপজেলা ডাকবাংলো রয়েছে। থাকার জন্য উপজেলা ডাকবাংলো কর্তৃপক্ষের সাথে আগে থেকে যোগাযোগ করে আসতে হবে]

এছাড়া দিনে যেয়ে দিনেই সাতক্ষীরা শহরে এসে থাকতে পারবেন।

সাতক্ষীরা শহরে থাকার মতো বিভিন্ন মানের হোটেল ও সার্কিট হাউজ রয়েছে।
টাইগার পয়েন্ট গেস্টহাউস মোবাইল-01720-510199
সুন্দরবন হোটেল মোবাইল-01710126624
হোটেল সৌদিয়া মোবাইল-01711450030
হোটেল টাইগার প্লাস মোবাইল-01774999000

[হোটেল গুলোর ভাড়া ৩০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে পড়বে]

Article Categories:
সাতক্ষীরা
banner

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।